• ২০২০ সাল পর্যন্ত কর অব্যাহতি পাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক
  • বিশেষ তহবিলে বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংকিং সেক্টরেও আছে দুষ্টু চক্র : এনবিআর চেয়ারম্যান
  • ৫ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু
  • এসএমই ঋণে সুদ হারের ব্যবধান সিঙ্গেলে রাখার নির্দেশ
  • বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি:
  • বাংলা একাডেমিতে বসছে ব্যাংকিং মেলা
  • দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে
  • স্কুল ব্যাংকিংয়ে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের নির্দেশ
  • সাবেক ছিটমহলবাসীদের স্যানিটেশন সুবিধা প্রদান পূবালী ব্যাংকের

এনজিও চালাতে লাগবে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ নীতিমালা

bangladeshbank
ব্যাংক নিউজ ২৪ ডট কমঃ বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাগুলোতে (এনজিও) ২০ হাজার টাকার বেশি লেনদেন হলে ওই গ্রাহকের তথ্য সংরক্ষণ করতে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক এক প্রজ্ঞাপনে একথা জানিয়েছে। এতে বলা হয়, প্রতিটি এনজিও এর পরিচালনা পর্ষদ, বোর্ড অব ট্রাস্টি, সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধ বিষয়ক নীতিমালা থাকতে হবে। প্রতিটি এনজিও এর একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নেতৃত্বে প্রধান কার্যালয়ে একটি ‘কেন্দ্রীয় পরিপালন ইউনিট’ প্রতিষ্ঠা করবে যা সরাসরি প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে থাকবে।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সকল এনজিও তাদের প্রত্যক্ষ সুবিধাভোগী যারা এক বছরে ২০ হাজার টাকার অধিক অংকের নগদ অর্থ/পণ্য/সেবা গ্রহণ করেছে, তাদের সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ পরিচিতির তথ্য এবং সমর্থিত দলিলাদি সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করবে। ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণকারী এনজিওসমূহের যে সকল গ্রাহকের অনুকূলে মঞ্জুরীকৃত ঋণ বা ঐ প্রতিষ্ঠানে যাদের আমানত স্থিতি ১ লাখ টাকা বা তার ঊর্ধ্বে রয়েছে সে সকল গ্রাহকের পরিচিতির সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ তথ্য এবং সমর্থিত দলিলাদি সংগ্রহ করতে হবে এবং পরিদর্শন ও অন্যান্য মাধ্যমে সংগৃহীত তথ্যের সঠিকতা নিশ্চিত করতে হবে। প্রত্যেক এনজিও/এনপিও তাদের প্রত্যক্ষ সুবিধাভোগীর পরিচিতি ও লেনদেন সম্পর্কিত তথ্য (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ন্যূনতম ৫ (পাঁচ) বছর পর্যন্ত সংরক্ষণ করবে। যাদের নিয়ন্ত্রণে অথবা নির্দেশনায় এনজিও/এনপিও পরিচালিত হয় তাদের পরিচিতির সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ তথ্য এবং উক্ত তথ্যাদির সমর্থনে দলিলাদি সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করবে।
এতে আরও বলা হয়, প্রতিটি এনজিও এক লাখ টাকা বা এর অধিক অংকের লেনদেন সম্পাদনের ক্ষেত্রে ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করবে এবং এর ব্যতিক্রম হলে এনজিও এর নিজস্ব কর্তৃপক্ষের অনুমোদন গ্রহণ করবে। এনজিওসমূহ তাদের সকল আর্থিক লেনদেন ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে সম্পাদনে অগ্রাধিকার প্রদান করবে।

বিভাগ - : জাতীয়, ব্যাংক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন