• স্টাইল ক্রেইজ (style craze) ফ্যাশন হাউজে নতুন ঈদ কালেকশন
  • ২০২০ সাল পর্যন্ত কর অব্যাহতি পাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক
  • বিশেষ তহবিলে বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংকিং সেক্টরেও আছে দুষ্টু চক্র : এনবিআর চেয়ারম্যান
  • ৫ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু
  • এসএমই ঋণে সুদ হারের ব্যবধান সিঙ্গেলে রাখার নির্দেশ
  • বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি:
  • বাংলা একাডেমিতে বসছে ব্যাংকিং মেলা
  • দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে
  • স্কুল ব্যাংকিংয়ে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের নির্দেশ

জঙ্গি অর্থায়ন প্রতিরোধে ব্যাংকারদের সতর্ক করলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর

atiur
ব্যাংক নিউজ ২৪ ডট কমঃ ব্যাংকের মাধ্যমে জঙ্গি তৎপরতায় অর্থায়ন ঠেকাতে ব্যাংকারদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান।

শুক্রবার সব বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ পরিপালন কর্মকর্তা (ক্যামেলকো) সম্মেলন-২০১৫ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ নির্দেশ দেন।
কক্সবাজারের হোটেল ওশান প্যারাডাইজে ২ দিনব্যাপী এ সম্মেলন আগামীকাল ২৮ মার্চ পর্যন্ত চলবে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নতুন নতুন জঙ্গি সংগঠনের আবির্ভাব ঘটছে উল্লেখ করে গভর্নর বলেন, জঙ্গি তৎপরতা বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াচ্ছে। ব্যাংকারদের গ্রাহক পরিচিতির সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহ (কেওয়াইসি) ও গ্রাহকের লেনদেন যথাযথভাবে মনিটরিং করতে হবে। জাতীয় পরিচয়পত্রের যে নতুন ডাটা বেইজ তৈরি হয়েছে তার সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংক যুক্ত হয়েছে। আমাদের সার্ভারের সাথে অন্যান্য ব্যাংকও শিগগিরই যুক্ত হবে।

ড. আতিউর বলেন, মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধে আর্থিক গোয়েন্দা ইউনিট (বিএফআইইউ) বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করে যাচ্ছে। এসব নির্দেশনা সঠিকভাবে পরিপালিত হচ্ছে কি না- তা প্রধান মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ কর্মকর্তা হিসেবে আপনাদেরই তদারকি করতে হবে।

গভর্নর আরও বলেন, গত কয়েকটি মাস ছিল দারুণ এক অস্থির সময়। এ সময়টায় সন্ত্রাসীরাও ছিল তৎপর। এই দুঃসময়ের মধ্যেও মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধে এ সম্মেলন খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

তিনি বলেন, মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন সারাবিশ্বেই গুরুতর আর্থিক অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। এজন্যে ব্যাংকিং খাতকে বেশি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। সন্ত্রাসে অর্থায়নের সামান্য ইঙ্গিত পেলে আমরা সংশ্লিষ্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রতি জিরো টলারেন্স দেখাব। মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন সংশ্লিষ্ট আইনকানুন, বিধি-বিধান এবং নীতি-নির্দেশনা বাস্তবায়নে আপনাদের যথাযথ ভূমিকা পালন করতে হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে অর্থায়ন ঠেকাতে ব্যাংকগুলোকে আরও কার্যকর করার জন্য এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সম্মেলন থেকে মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে অর্থায়ন প্রতিরোধে বিভিন্ন কৌশল নির্ধারণ করা হবে। সম্মেলন ছাড়াও মানিলন্ডারিংয়ে নিয়োজিত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে গভর্নর আলাদা বৈঠক করবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. নাসিরুজ্জামানের সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন নির্বাহী পরিচালক ও বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) এর ডেপুটি হেড ম. মাহফুজুর রহমান ও চট্টগ্রাম অফিসের নির্বাহী পরিচালক মো. মিজানুর রহমান জোদ্দার। এছাড়া বিভিন্ন ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বিভাগ - : জাতীয়, ব্যাংক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন