• ২০২০ সাল পর্যন্ত কর অব্যাহতি পাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক
  • বিশেষ তহবিলে বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংকিং সেক্টরেও আছে দুষ্টু চক্র : এনবিআর চেয়ারম্যান
  • ৫ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু
  • এসএমই ঋণে সুদ হারের ব্যবধান সিঙ্গেলে রাখার নির্দেশ
  • বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি:
  • বাংলা একাডেমিতে বসছে ব্যাংকিং মেলা
  • দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে
  • স্কুল ব্যাংকিংয়ে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের নির্দেশ
  • সাবেক ছিটমহলবাসীদের স্যানিটেশন সুবিধা প্রদান পূবালী ব্যাংকের

দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে

basicdudok
ব্যাংক নিউজ ২৪ ডট কমঃ বেসিক ব্যাংকে জালিয়াতি ঘটনায় দুদকের করা ৫৬ মামলার প্রয়োজনীয় নথি সংগ্রহের জন্য আদালতে আবেদন করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলা পরবর্তী তদন্তের অংশ হিসেবে এই সপ্তাহে দুদক কর্মকর্তারা আদালতের কাছে সংশ্লিষ্ট নথি চাইবেন। গতকাল রোববার দুদক সূত্র এসব তথ্য জানায়।

সূত্র জানায়, এ বছরের ২১, ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর বেসিক ব্যাংকের বিভিন্ন জালিয়াতির ঘটনায় ৫৬টি মামলা করে দুদক। এরপর গত ২৬ অক্টোবর মামলা পরবর্তী তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পান দুদকের ৬ কর্মকর্তা। এরা হলেন দুদকের উপপরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিম, ঋত্বিক সাহা, মোহাম্মদ মোরশেদ আলম, সহকারী পরিচালক শামছুল আলম, সহকারী পরিচালক একেএম ফজলে হোসেন ও উপসহকারী পরিচালক মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন।

বেসিক ব্যাংক জালিয়াতির ঘটনায় যেসব প্রতিষ্ঠান জড়িত ছিল এর মধ্যে রয়েছে ভাসাবি ফ্যাশন, তাহমিনা নিটওয়্যার, তাহমিনা ডেনিম, সিলভারকম ট্রেডিং, লাইফস্টাইল ফ্যাশন মেকার, খাদিজা অন্ড সন্স, বি আলম শিপিং, এশিয়ান শিপিং, এশিয়ান ফুড, সিমেক্স লিমিটেড, রিলায়েন্স শিপিং, আমিরা শিপিং ও আমারল্ড ওয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

দুদক সূত্র জানায়, কর্মকর্তারা নিজ নিজ দায়িত্ব নিজের মামলার নথিপত্র সংগ্রহের জন্য আদালতের শরণাপন্ন হবেন। এরপর নথিপ্রাপ্তির সাপেক্ষে তারা নথি পর্যালোচনা, সাক্ষাৎকারসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালাবেন। এ প্রসঙ্গে দুদক কমিশনার মো. সাহাবুদ্দিন চুপ্পু সাংবাদিকদের বলেন, ‘দুদকের কর্মকর্তারা স্বাধীনভাবে তাদের তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। তারা নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী আদালতের সহযোগিতা নিতে পারেন।

বিভাগ - : অর্থ ও বাণিজ্য

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন