• ২০২০ সাল পর্যন্ত কর অব্যাহতি পাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক
  • বিশেষ তহবিলে বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংকিং সেক্টরেও আছে দুষ্টু চক্র : এনবিআর চেয়ারম্যান
  • ৫ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু
  • এসএমই ঋণে সুদ হারের ব্যবধান সিঙ্গেলে রাখার নির্দেশ
  • বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি:
  • বাংলা একাডেমিতে বসছে ব্যাংকিং মেলা
  • দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে
  • স্কুল ব্যাংকিংয়ে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের নির্দেশ
  • সাবেক ছিটমহলবাসীদের স্যানিটেশন সুবিধা প্রদান পূবালী ব্যাংকের

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা সয়ংক্রিয়ভাবে গ্রাহকের হিসাবে জমা হবে

shonchoy patro
ব্যাংক নিউজ ২৪ ডট কমঃ সয়ংক্রিয়ভাবে গ্রাহকের হিসাবে সঞ্চয়পত্রের অর্থ জমার ইলেকট্রনিক পদ্ধতি ‘অটোমেশন অব সঞ্চয়পত্র পে-আউট’ কার্যক্রম চালু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে মাস শেষে সঞ্চয়পত্রের মুনাফার টাকা ও মেয়াদ শেষে আসল টাকা সরাসরি জমা হবে গ্রাহকের হিসাবে।

এছাড়া নতুন এই পদ্ধতির ফলে সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ পূর্তিতে মূল টাকার জন্য গ্রাহককে আর বাংলাদেশ ব্যাংকের কাউন্টারে দীর্ঘ সময় লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হবে না। এতে গ্রাহকের সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে। সময়মত অটোমেটেড পদ্ধতিতে গ্রাহকের ব্যাংক হিসাবে সঞ্চয়পত্রের মুনাফার টাকা জমা হওয়ায় গ্রাহক তার সুবিধামতো যে কোন সময়ে তার হিসাব থেকে অর্থ উত্তোলন করতে পারবে। সেই সঙ্গে টাকা জমা হওয়া মাত্রই গ্রাহকের মোবাইলে শর্ট মেসেজ ও ইমেইল করে জানিয়ে দেওয়া হবে টাকা জমার নিশ্চিত বার্তা।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গভর্নর ড. আতিউর রহমান এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক আহসান উল্লাহর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ডেপুটি গর্ভনর আবুল কাশেম, আবু হেনা মোহাম্মদ রাজি হাসান, নাজনীন সুলতানা, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মাহমুদা আক্তার মীনা প্রমুখ।

এসময় গর্ভনর বলেন, গ্রাহক সেবার মান বাড়ানোর অংশ হিসেবে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে সঞ্চয়পত্রের সব ধরনের পরিশোধ সরাসারি গ্রাহকের ব্যাংক হিসাবে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হলো। সেখান থেকে গ্রাহক তার সুবিধা মতো টাকা তুলতে করতে পারবেন।

প্রসঙ্গত, সরকারের অভ্যন্তরীণ ঋণ ব্যবস্থাপনার অংশ হিসাবে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ অন্যান্য বানিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে সরকার সঞ্চয়পত্র বিক্রয় করে থাকে। প্রথাগতভাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কার্যক্রমের সাথে সরাসরি জনসাধারণের সম্পৃক্ততা নেই বললেই চলে। তবে বাংলাদেশে যে কয়টি ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংক তার প্রথাগত কার্যক্রমের বাইরে কাজ করছে, সঞ্চয়পত্র বা সরকারী ঋনপত্র ক্রয়-বিক্রয় তার মধ্যে অন্যতম। বিজ্ঞপ্তি।

বিভাগ - : অর্থ ও বাণিজ্য, ব্যাংক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন