• স্টাইল ক্রেইজ (style craze) ফ্যাশন হাউজে নতুন ঈদ কালেকশন
  • ২০২০ সাল পর্যন্ত কর অব্যাহতি পাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক
  • বিশেষ তহবিলে বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংকিং সেক্টরেও আছে দুষ্টু চক্র : এনবিআর চেয়ারম্যান
  • ৫ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু
  • এসএমই ঋণে সুদ হারের ব্যবধান সিঙ্গেলে রাখার নির্দেশ
  • বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি:
  • বাংলা একাডেমিতে বসছে ব্যাংকিং মেলা
  • দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে
  • স্কুল ব্যাংকিংয়ে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের নির্দেশ

সন্ধ্যা ৬ টার পর নারী কর্মীদের ব্যাংকে রাখা যাবে না

wb
ব্যাংক নিউজ ২৪ ডট কমঃ সন্ধ্যা ৬ টার নারী কর্মকর্তা অথবা কর্মচারীদেরকে ব্যাংকে অবস্থানের জন্য বাধ্য করা যাবে না। ব্যাংকিং সময়সূচি শেষ হয়ে গেলে তাদেরকে ছেড়ে দিতে হবে।বাংলাদেশ ব্যাংক দেশের সব তফসিলি ব্যাংককে এ নির্দেশ দিয়েছে। তবে যদি কোনো নারী কর্মী তার কাজের প্রয়োজনে স্বপ্রণোদিত হয়ে অফিসে অবস্থান করেন তার ক্ষেত্রে এ নির্দেশনা প্রযোজ্য হবে না।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং রেগুলেশন এন্ড পলিসি ডিপার্টমেন্ট (বিআরপিডি) থেকে দেশের সকল তফসিলী ব্যাংকের উদ্দেশে এক প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।এ নির্দেশ আগামী রোববার থেকে কার্যকর হবে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিককালে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, ব্যাংকিং সময়সূচির পরে অর্থাৎ কার্যদিবস শেষে কর্মকর্তা-কর্মচারী বিশেষ করে মহিলা কর্মকর্তা অথবা কর্মচারীদেরকে ব্যাংকে অবস্থানের জন্য বাধ্য করা হচ্ছে। তাছাড়া তফসিলী ব্যাংকের কর্মকর্তাগণের নিকট থেকে চাকরিতে ইস্তফা, অযৌক্তিক বরখাস্তকরণ কিংবা অপসারণ এবং পরবর্তীতে আর্থিক সুবিধা পাওয়ার ক্ষেত্রে হয়রানিসহ নানা বিড়ম্বনার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে অসংখ্য অভিযোগ আসছে। ফলে বিভিন্ন রকমের জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে যা সুষ্ঠু মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে অন্তরায়।

এ পেক্ষপটে বাংলাদেশ ব্যাংক কতৃর্ক পরিচালিত বিভিন্ন অভিযোগ পর্যালোচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে বিশেষ অফিসীয় প্রয়োজনে যদি কোনো মহিলা

কর্মকর্তা বা কর্মচারীকে ব্যাংকিং সময়সূচির পরেও ব্যাংকে অবস্থান করতে হয় তবে তাদেরকে উপযুক্ত নিরাপত্তা ও পারিশ্রমিক দিতে হবে।

একইসাথে ব্যাংক কতৃর্ক ইচ্ছামাফিক ও ঢালাওভাবে কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাঁটাই বন্ধ করতে হবে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে, নিয়োগকালে পেশাদারিত্বের সাথে প্রার্থী যাচাই-বাছাই করতে হবে। নিয়োগকৃত কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের মাধ্যমে

উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে হবে। এছাড়া, ব্যাংকের কর্মকর্তাগণের চাকুরীতে ইস্তফা, চাকুরী হতে বরখাস্তকরণ কিংবা

অপসারণ এবং পরবর্তী আর্থিক সুবিধা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে International Labour Organization Conventions; (আইএলও), শ্রম আইন-২০০৬ ও সময়ে সময়ে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রদত্ত নির্দেশনা যথাযথভাবে পালন করতে হবে।

বিভাগ - : ব্যাংক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন