• স্টাইল ক্রেইজ (style craze) ফ্যাশন হাউজে নতুন ঈদ কালেকশন
  • ২০২০ সাল পর্যন্ত কর অব্যাহতি পাচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক
  • বিশেষ তহবিলে বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিল বাংলাদেশ ব্যাংক
  • ব্যাংকিং সেক্টরেও আছে দুষ্টু চক্র : এনবিআর চেয়ারম্যান
  • ৫ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু
  • এসএমই ঋণে সুদ হারের ব্যবধান সিঙ্গেলে রাখার নির্দেশ
  • বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি:
  • বাংলা একাডেমিতে বসছে ব্যাংকিং মেলা
  • দুদক বেসিক ব্যাংকের নথিপত্র সংগ্রহে আদালতে যাবে
  • স্কুল ব্যাংকিংয়ে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের নির্দেশ

সাড়ে ৬ হাজার মোবাইল ব্যাংক এজেন্টের কার্যক্রম বন্ধ

mobilebank
ব্যাংক নিউজ ২৪ ডট কমঃ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অবৈধ লেনদেন ঠেকাতে সব মোবাইল ব্যাংকিং অপারেটরদের ডেকেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কীভাবে অবৈধ লেনদেন বন্ধ করা যায় সেজন্য চলতি সপ্তাহে সব ব্যাংক এমডির সঙ্গে বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন বাড়লেও এক্ষেত্রে নিয়মের ব্যত্যয়ও ঘটছে অনেক। তাই জুলাই মাসে ৬ হাজার ৪৩৯ এজেন্টের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এর আগে গত মার্চ মাসে প্রায় ৬ লাখ অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়েছিল। মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহার করে অবৈধ লেনদেন বন্ধের লক্ষ্যে এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা এ প্রসঙ্গে বলেন, ব্যাংকিং সেবা বঞ্চিতদের সেবার আওতায় আনার জন্য চালু করা মোবাইল ব্যাংকিং এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তবে এ মাধ্যম ব্যবহার করে কেউ যেন অবৈধ লেনদেন করতে না পারে সে জন্য সতর্কতা হিসাবে একই ব্যাংকে একজনের একাধিক অ্যাকাউন্ট থাকলে তা বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়। এজন্যই অনেক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, জুলাই মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন হয়েছে ১৩ হাজার ৮১১ কোটি টাকা। জুনে লেনদেন হয়েছিল ১২ হাজার ৯৬৯ কোটি টাকা। এতে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৬০ কোটি টাকা। আগের মাসে যা ছিল ৪৩২ কোটি টাকা। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৬ দশমিক ৪৯ শতাংশ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, জুলাই শেষে মোট এজেন্টের সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৩১ হাজার ৭৩১টি। জুন মাস শেষে যা ছিল ৫ লাখ ৩৮ হাজার ১৭০টি। অর্থাত্ এজেন্টের সংখ্যা কমেছে ১ দশমিক ২০ শতাংশ বা ৬ হাজার ৪৩৯টি। জুলাই শেষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে মোট অ্যাকাউন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৮৭ লাখ ৩২ হাজার। আগের মাস শেষে যা ছিল ২ কোটি ৮৬ লাখ ৪৬ হাজার। এ হিসাবে এক মাসের ব্যবধানে অ্যাকাউন্ট বেড়েছে ৮৬ হাজার। জুলাই শেষে চালু অ্যাকাউন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক কোটি ১৯ লাখ। আগের মাস শেষে চালু ছিল এক কোটি ২২ লাখ অ্যাকাউন্ট। এতে আগের মাসের তুলনায় চালু অ্যাকাউন্ট কমেছে প্রায় ৩ লাখ।

বিভাগ - : ব্যাংক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন